যারা Views, Subscribe Buy করবেন তারা এই পোষ্টটি একবার পড়ে নিন।

1 comment
ইউটিউবে চ্যানেল করেছেন। ভিডিও আপলোড দিয়েছেন কিন্তু আপনার ভিডিওতে Views নেই। বিভিন্ন Group এ দেখেছেন Real Views সেল করা হচ্ছে। আপনিও ভাবছেন View কিনবেন। তাদের জন্য আজকের আমার পোষ্ট। 

YouTube Related নতুন ভিডিওগুলো পেতে প্রথম আমার চ্যানেলে Subscribe করুন এবং বেল আইকনটি অন করে দিন।   

আমি একটা চ্যানেল বানিয়েছি। এবং ভিডিও আপলোড করেছি। লক্ষ লক্ষ  View Buy করেছি । লাইক Buy করেছি । Subscribe ও Buy করেছি । আমার চ্যানেলের বয়স ৩ মাসের মত। এখন আমার ভিডিওগুলোতে লক্ষ লক্ষ ভিউ । View কিনতে আমার খরচ হয়েছে মাত্র ২০ হাজার টাকা। আর আমি এখন Monthly ১ হাজার ডলার Earn করছি। YouTube এর কাজ করা এত সহজ তা আগে বুঝিনি। কিছু টাকা খরচ করে আমি এখন ডলার ইনকাম করছি। ভাবছি আরো ৩টি চ্যানেল করব এবং এভাবে প্রতি চ্যানেল থেকে ১ হাজার ডলার হলে আমি ৪টি চ্যানেল থেকে ৪ হাজার ডলার Earn করব মানে হল প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা প্রতি মাসে।  আমার Earning প্রতি মাসে সাড়ে ৩ লক্ষ টাকাতেই থেমে থাকবে না। কয়েক মাস পড়ে তা ৮-১০ লক্ষ টাকাতে পৌছবে আশা করি। আপনিও এভাবে Earn শুরু করে দিন আমার মত। আমরা কেউ আর বেকার বা গরিব থাকব না।

এতক্ষন যারা আমার এই কথা গুলো পড়ছেন তারা হয় অনেকে মনে মনে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন আমার মত কিছু টাকা ইনভেস্ট করে কাজ শুরু করে দিবেন আবার অনেকেই আমাকে মিথ্যুক, চাপাবাজ কিংবা পাগল বলছেন। আর অনেকেই হাজার হাজার ডলারের স্বপ্ন দেখা শুরু করে দিয়েছেন। এতক্ষন যারা আমাকে পাগল বা চাপাবাজ মনেকরছেন তাদের আইডিয়াই ঠিক আছে। কারন উপরের কথাগুলো পাগল কিংবা চাপাবাজরাই বলতে পারে। আর যারা আমার কথাগুলো শুনে হাজার হাজার ডলারের কথা চিন্তা করছেন তারা এতক্ষন ভুল স্বপ্ন দেখছেন।

যারা আপনার কাছে ভিউ সেল করার জন্য রিকুয়েস্ট করছে তারা আপনাকে এই রকমভাবেই বলছে। এবং এই রকমই স্বপ্ন দেখাচ্ছে।


YouTube কিভাবে  Views কাউন্টস করে ?
 আপনার একটা ভাল মানের আপলোড করবেন এবং আপনার এই  ভিডিওতে যখন  ১ লক্ষ ভিউ হবে তখন যে বিষয়গুলো থাকবে তা হল ১ লক্ষ ভিউ হলে তার সাথে ৬০% Viewers দের ভিডিওটা ভাল লাগবে তার  মধ্য থেকে কিছু Viewers আপনার ভিডিওতে লাইক দিবে আর ২০% Viewers দের  ভিডিওটা হয়ত ভাল লাগবে না  তার মধ্যে থেকে কিছু Viewers  আপনার ভিডিওতে ডিসলাইক দিবে। আর ২০% Viewers দের ভাল-মন্দ কোনটাই লাগবে না। তারা কোন লাইক দিবে না। আর Total ভিডিও Viewer দের মধ্যে থেকে ১০% ভিউয়ার আপনার ভিডিওতে কমেন্টস করবে । ৫% ভিউয়ার ভিডিওটি শেয়ার করবে। আর ৫% ভিউয়ার আপনার ভিডিও এড এ ক্লিক করবে।  এই পারসেন্টেস কিছু কম বেশী হতে পারে। তবে ইউটিউব এভাবেই ভিউ কাউন্ট করে। অর্থ্যাত ইউটিউব দেখে ইউজার এনগেজমেন্ট। মানে হল ভিউ এর পাশাপাশি ভিডিওতে লাইক, শেয়ার , কমেন্টস। আর এই সবগুলো বিষয় যখন থাকবে ইউটিউবের কাছে তাই হল রিয়েল Viewers.

যারা ভিউ Buy করতে চান তার হয়ত ভাবছেন আপনি ত শুধু ভিউ Buy করছেন না। তার সাথে Like, Dislike, Comments and Share Buy করছেন । তাহলে ত সবকিছুই ঠিক আছে। YouTube কে যারা বোকা মনে করে এই কাজটা করছেন তারাই আসলে বোকমীর মত কাজ করছেন। Video Views এর উপর আরো কিছু বিষয় আছে। তা হল

আপনার ভিডিওটি যারা ভিউ করবে তারাই আপনার ভিডিওতে লাইক দিবে, ডিসলাইক দিবে, কমেন্টস করবে, শেয়ার করবে এবং এড এ ক্লিক করবে।

YouTube সাধারনত আপনার Media Access Control (MAC) address , Ethernet Hardware Address (EHA) এবং আপনার নেটওয়ার্ক আইপি Address Track করে। ইউটিউব যখন দেখবে একই পিসি বা একই আইপি থেকে আপনার ভিডিওটি ভিউ হচ্ছে আর যে আইপি থেকে আপনার ভিডিওটি ভিউ হচ্ছে তা থেকে কোন লাইক, ডিসলাইক বা কমেন্টস নেই। আপনার লাইক, ডিলাইকগুলো যে আইপি থেকে হচ্ছে সেই আইপি থেকে কোন ভিউ নেই। তখনই আপনার ভিডিও ভিউ গুলো YouTube Fake মনে করবে আর আপনার চ্যানেলটি সাসপেন্ড করে দিবে।

আরো একটা বিষয় আছে তা হল ইউটিউব যখন দেখবে আপনার ভিডিওতে Watch Time এবং Audience Retention সব ভিডিওতে ১ বা ২ সেকেন্ড তখনই ইউটিউব আপনার চ্যানেলটিকে ব্যান করে দিবে। Watch time and Audience Retention হল এভারেজ ভিউ এবং এভারেজ ডিউরেশন। আর্থ্যাত আপনার একটি ভিডিওতে যখন ১ লক্ষ ভিউ থাকবে তাহলে সবাই কি আপনার ভিডিওগুলো ১ বা ২ সেকেন্ড করে দেখবে ? আর Watch time and Audience Retention ভিডিও রেঙ্ক এর জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ন।

Fake Views কিভাবে হয় ?
Fake Views নিয়ে কাজ করে এই রকম অনেক ওয়েবসাইট আছে গুগুলে সার্চ করলে অনেক ওয়েবসাইট আছে যারা ভিউ সহ অন্যান্য Service দিয়ে থাকে। আর এমন অনেক টুলস এবং সফটওয়্যার আছে যা দিয়ে আপনি ভিউ বাড়াতে পারেন।

ওয়েবসাইটগুলো কিভাবে ভিউজ নিয়ে কাজ করে : 
ভিউ সার্ভিস দেয় অনেক ওয়েবসাইটের কাজের ধরর আলাদা। কিছু সাইট আছে যারা আপনার কাছ থেকে ভিউ এর বিনিময়ে ডলার নিবে । তারা যে কাজটি করে তা হলে Auto Generate কিছু টুল, প্লাগইন বা ওয়েবসাইট আছে যা থেকে ভিউ সংগ্রহ করে। যেমন : কিছু ডাউনলোড সাইট দেখবেন আপনি যখন ডাউনলোডে ক্লিক করবেন তখন সাথে সাথে ৪/৫ টি লিংক ওপেন হয়ে যায়। আর বুঝে না বুঝে তা Close করে দেন সাথে সাথে। তারা সাধারনত এভাবেই সার্ভিস দিয়ে থাকে।

বাংলাদেশে অনেকেই এই Service দিয়ে থাকে । তাদের মধ্যে বেশীর ভাগই যে কাজটা করে তা হলো Proxy বা VPN দিয়ে অটো ভিউ করে দেয় । নির্দিষ্ট একটা সময় দেয় সেই সময় পর পর তা রিপ্রেস হয়।

যারা Views, Like, Dislike, Comments, Share, Subscribe সহ এই সার্ভিস দেয় তারা অথবা তাদের ওয়েবসাইটে দেখা যায় খুবই জোরালো ভাবে ১০০% গ্যারন্টি দিচ্ছে যে Real Views এবং ইউটিউব চ্যানেলে কোন সমস্যা হবে না । আর অনেক সাইট দেখা যায় তারা নাকি ইউটিউবের পারমিশন নিয়ে এই Service দিচ্ছে। মনে রাখবেন YouTube কখনও Fake জিনিস এলাউ করে না। তারা সব সময় রিয়েল পছন্দ করে। যারাই ইউটিউব আজ সফল তারাই খুবই কষ্ট করে এবং রিয়েল ভাবে কাজ করে এই পর্যায়ে আসছে।

তাই ইউনিক কন্টেন্ট নিয়ে ভাল মানের ভিডিও তৈরী করেন, এসইও করেন আপনার ভিডিও ভিউ হবেই আর আপনি সফল হবেনই। আর ইউটিউব কাজ করতে হলে যে বিষয়টা সবচেয়ে বেশী দরকার তা হল ধৈর্য্য।


তাই যারা Views, Like, Dislike ইত্যাদি Buy করার কথা ভাবছেন তারা আপনার এই টাকা দিয়ে ভিডিও তৈরীর কাছে খরচ করুন । তারপরও যদি Buy করতে চান তাহলে আপনার চ্যানেলটা ব্যান হওয়ার জন্য তৈরী থাকুন। আজ, কাল বা পরশু আপনার চ্যানেল  সাসপেন্ড হবেই। 

এই বিষয়ক একটা ভিডিও আছে আমার চ্যানেলে। ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুন

আমার চ্যানেলটিতে সাবস্ক্রাইব করতে ভুলবেন না। 

1 comment :